করোনাভাইরাস মুক্ত নিউজিল্যান্ড

নিউজিল্যান্ডে এখন কোনো কোভিড-১৯ রোগী নেই বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ফেব্রুয়ারির ২৮ তারিখের পর এ প্রথম দেশটি ‘করোনাশূন্য’ (জিরো অ্যাকটিভ কেইস) হল।

সোমবার (৮ জুন) সকালেই নিউজিল্যান্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়, সেদেশের শেষ কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী এখন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তাই বর্তমানে আর কোনো করোনা রোগী নেই নিউজিল্যান্ডে।

নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য বিভাগের মহাপরিচালক অ্যাশলে ব্লুমফিল্ড সোমবার বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছেন, সবশেষ যে ব্যক্তিকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল তিনি এখন উপসর্গমুক্ত।

করোনা পরিস্থিতি খারাপ থেকে অতি খারাপ হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে৷ আবার এমনও অনেক দেশ রয়েছে, যেখানে পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি ঘটছে৷ এমন অবস্থার মধ্যেও করোনাশূন্য হলো নিউজিল্যান্ড। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জিততে সফল ওশিয়ানিয়ার এ দেশ।

এমন ঘোষণা এখনও পর্যন্ত খুব কম দেশই জানাতে পেরেছে। এরইমধ্যে লকডাউন কাটিয়ে উঠে কাজে ফিরেছেন কিউইরা। করোনার জন্য যে সমস্ত বিধিনিষেধগুলো আরোপ করা হয়েছিল, সেগুলিকেও ধাপে ধাপে তুলে নেয়া হবে।

স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যা নাগাদ দেশটি করোনা সংক্রান্ত সব বিধিনিষেধ তুলে দিতে পারে। সরকারের উচ্চপর্যায়ের বৈঠকের পর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও জানানো হয়।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, নিউজিল্যান্ডে মোট ১ হাজার ৫০৪ জন করোনা রোগী পাওয়া যায়। এর মধ্যে ২২ জন মারা গেলেও বাকি ১৪৮২ জন সুস্থ হয়েছেন। দেশটি এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৯৪ হাজার ৮৪৮ জনের করোনা পরীক্ষা করিয়েছে।

গোটা পৃথিবীতে এই রোগটিতে ৪ লাখ ৬ হাজার ১০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট আক্রান্ত ৭০ লাখ ৮৬ হাজার ৮ জন। বিপরীতে সুস্থ হয়েছেন ৩৪ লাখ ৫৯ হাজার ৯৭২ জন।

মৃত এবং আক্রান্তের সংখ্যায় শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাতে সেখানে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ১২ হাজার ৪৬৯ জনের প্রাণ গেল নতুন এই রোগে। মোট আক্রান্ত ২০ লাখ ৭ হাজার ৪৪৯ জন।

গতবছর ডিসেম্বরে প্রথম প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় চীনে। এরপর বিশ্বের প্রায় সব দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে এ ভাইরাসের সংক্রমণ।

সূত্র : সময় টিভি

নিউজটি শেয়ার করুন
Total Page Visits: 72 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *