দেওয়াল চাপায় এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর মান্দায় দেওয়াল চাপা পড়ে রানী(৯) নামে এক স্কুল ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

রবিবার (৫ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে উপজেলার কসবা মান্দা গ্রামে এ মর্মান্তিক দূর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত রানী (৯) উপজেলার ১ নং ভারশোঁ ইউপির কসবা মান্দা গ্রামের অাব্দুস সালামের মেয়ে এবং আলালপুর হাজী শেখ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। একভাই এবং এক বোনের মধ্যে রানী ছিলো ছোট। রানীর অকাল মৃত্যুতে এলাকাজুড়ে শোকের মাতম চলছে। তার পরিবারের লোকজনের আহাজারিতে আকাশ- বাতাশ ভারি হয়ে উঠছে। মেয়ে হারানোর শোকে মূর্ছা যাচ্ছেন রানীর বাবা- মা এবং আত্মীয় স্বজনরা।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় স্কুলছাত্রী রানী প্রতিবেশি রমজান আলীর ছেলে শফিকুল ইসলামের (পরিত্যক্ত) ধানভাঙ্গা মিলের পাশে টিনের তৈরী টয়লেটে যায়। এসময় শফিকুল ইসলামের ওই মিলের মাটির দেওয়াল টয়লেটে থাকাবস্থায় রানীর উপর পড়ে হাত- পা ভেঙ্গে এবং মাথা ফেটে ঘটনাস্থলেই রানী মারা যায়। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটস্থল থেকে নিহত স্কুল ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

উল্লেখ্য, নিহত রানীর বাবা অনেক গরীর এবং অসহায়। পক্ষান্তরে মিলের মালিক শফিকুল অনেক ধনী এবং প্রভাবশালী। কাউকেও পরোয়া করেনা। কেনোনা, ইতিপূর্বে তার মিলে মাটির তৈরী ঘরের পরিত্যক্ত দূর্বল দেওয়ালটি বারংবার সড়িয়ে নিতে বলা সত্ত্বেও না সড়ানোর জন্যই এ অনাকাঙ্ক্ষিত দূর্ঘটনায় ছোট্ট
মেয়েটিকে জীবন দিতে হলো। রানীর এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর জন্য ওই মিলের মালিক শফিকুলকেই দায়ী করছেন স্থানীয়রা। তার কঠিন শাস্তির দাবী জানান নিহতের পরিবারের লোকজন।

বর্তমানে নিহত স্কুল ছাত্রীর মরদেহ মান্দা থানা পুলিশের হেফাজতে আছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

নিউজটি শেয়ার করুন
Total Page Visits: 99 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *